চট্টগ্রামে যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ে এক যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে।
নিহত মো. গোলাম মোস্তফার (৪৫) বাড়ি মিরসরাই উপজেলার জোরারগঞ্জ থানার অলিনগর এলাকায়। তিনি ১ নম্বর করেরহাট ইউনিয়ন যুবলীগের সহ সভাপতি ছিলেন। রাত ১টা থেকে ৩টার মধ্যে ওই ঘটনা ঘটে বলে ধারণা করছে পুলিশ।

জোরারগঞ্জ থানার ওসি জাহিদুল কবির জানান, সোমবার ভোরের দিকে তার বাড়ির সামনে রাস্তার ওপর মোস্তফার লাশ পড়ে থাকতে দেখে তার স্ত্রী থানায় খবর দেন।

মিরসরাইয়ের সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান গিয়াস উদ্দিন জানান, মোস্তফা করেরহাট ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নয়নের অনুসারী হিসেবে এলাকায় পরিচিত ছিলেন। তিনি আওয়ামী লীগের রাজনীতিতেও যুক্ত ছিলেন।

পরিবারের বরাত দিয়ে ওসি বলেন, মোস্তফা পোল্ট্রি ব্যবসা করতেন। সেখান থেকে রাতে মোটরসাইকেলে বাড়ি ফেরার পথে তার ওপর হামলা হয় বলে ধারণা করা হচ্ছে। তার গায়ে ধারালো অস্ত্রের আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। ওসি বলেন, জমি নিয়ে মোস্তফার পারিবারিক বিরোধ ছিল বলেও আমরা খবর পেয়েছি। তদন্তে সবকিছুই খতিয়ে দেখা হবে।

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘সশস্ত্র সংঘাত ও তথ্য বিভ্রান্তির বিরুদ্ধে ছাত্র-যুবসমাজের ভূমিকা’ শীর্ষক আলোচনা সভা :  পার্বত্য অঞ্চলে কিছু গোষ্ঠী উদ্দেশ্য প্রণোদিত ভাবেই বিভ্রান্তি সৃষ্টির চেষ্টা করছে —-চবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আবু তাহের