নাইক্ষ্যংছড়িতে জঙ্গি ও সন্ত্রাসীদের স্থান নেই – কমিউনিটি পুলিশিং ফোরামের সভায় বক্তারা

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়িতে জঙ্গি,নাসকতা ও সন্ত্রাস বিােধী এক সভায় থানার অফিসার ইনচার্জ -এ এইচ এম তৌাহদ কবির বলেছেন, মিয়ানমার সীমানাঘেষা এ উপজেলা পাহাড়ি- বাঙ্গালীদের মিলন স্থান। এখানে জাতি-ধর্ম,বর্ণ,গোষ্টি সকলেই শান্তি চায়। সকলেই চায় আইনের সহায়তা। এ পর্যায়ে পুলিশ জনগনের পাশে থেকেই কাজ করতে বদ্ধ পরিকর। তিনি আরো বলেন, এর পরেও কেউ যদি আইন ভঙ্গ করে তবে, সচেতন মহলের সহায়তায় সমাজের পরতে পরতে অপরাধীদের সনাক্ত করে আইনী ব্যবস্থায় নেয়া আনা হবে তাদের। বিশেষ করে কেউ যদি জঙ্গিবাদ, নাসকতায় বা সন্ত্রাসে জড়ায় তবে তাকে ছাড় দেয়া হবে না। নাইক্ষ্যংছড়িতে জঙ্গিবাদের কোন স্থান নেই। গতকাল ৭ মে রোববার বিকাল ৪ টায় নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা সদরের চাকঢালা বাজার সত্ত্বরে আয়োজিত এ সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ সব কথা বলেন তিনি ।
এ সময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন, ন্ইাক্ষ্যংছড়ি খানার সিনিয়র উপ-পরিদর্শক মনিরুল ইসলাম, উপজেলা ্ আওয়ামী লীগের সিনিয়র নেতা ডা: সিরাজুল হক,কমিউনিটি পুলিশিং ফেরামের উপজেলার সহ সভাপতি তারেক রহমান, সাধারণ সম্পাদক আবদুচ্ছত্তার ও থোয়াইচিহ্লা চাক প্রমূখ। সভায় সভাপতিত্ব করেন নাইক্ষ্যংছড়ি সদর ইউপি চেয়ারম্যান ফরিদুল আলম। এতে এলাকার সর্বস্থরের লোকজন উপস্থিত ছিলেন।

পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের ২৬ বছর পূর্তি উদযাপন বিভিন্ন চ্যালেঞ্জ থাকা সত্ত্বেও পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয় শান্তিচুক্তির পূর্ণ বাস্তবায়নে অঙ্গিকারাবদ্ধ ——পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি

পার্বত্য চট্টগ্রাম নাগরিক পরিষদের পার্বত্য চট্টগ্রাম শাসনবিধি আইন বহাল রাখার ষড়যন্ত্র প্রতিরোধে আশু করণীয় শীর্ষক-গোলটেবিল আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত : উপনিবেশিক ও অসাংবিধানিক ১৯০০ সালের পার্বত্য চট্টগ্রাম শাসনবিধি আইন বহাল রাখার ষড়যন্ত্র প্রতিরোধ করতে হবে–সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম বীর প্রতীক এমপি