জাতীয় পাট দিবস উপলক্ষে রাঙ্গামাটিতে র‌্যালী ও আলোচনা সভা

॥ নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ ‘সোনালী আঁশের সোনার দেশ, পাট পণ্যের বাংলাদেশ’ এ শ্লোগানকে সামনে রেখে পাট অধিদপ্তর ও বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের আয়োজনে সারাজেলার ন্যায় রাঙ্গামাটিতেও পালিত হলো জাতীয় পাট দিবস-২০১৭।
সোমবার (৬ মার্চ) সকালে দিবসটি উপলক্ষে এক বর্ণাঢ্য র‌্যালী ও আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়। র‌্যালীটি জেলা পরিষদ প্রাঙ্গণ হতে শুরু হয়ে শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে শেষ হয়ে আলোচনাসভায় মিলিত হয়।
অনুষ্ঠানে রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমা প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের নির্বাহী কর্মকর্তা ছাদেক আহমদের সভাপতিত্বে আলোচনাসভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে সহকারী জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ মফিজুল ইসলাম, মুজাদ্দেদ-ই-আল ফেসানি উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক আব্দুল মঈন বক্তব্য দেন।
স্বাগত বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম পাট অধিদপ্তরের পরিদর্শক মোঃ আজিজুল হক এবং অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের জনসংযোগ কর্মকর্তা অরুনেন্দু ত্রিপুরা।
আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বলেন, তামাক চাষীদের তামাক চাষে নিরুৎসাহিত করে পাট চাষে উদ্বুদ্ধ করতে হবে। তাদের বোঝাতে হবে তামাক চাষের ফলে নিজের এবং পরিবেশের প্রচুর ক্ষতি হয়। তিনি বলেন, এক সময় এই সোনালী আঁশ রপ্তানি করে বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করেছে কিন্তু দিন দিন সে ঐতিহ্য হারিয়ে যেতে বসেছে। সে ঐতিহ্য ফিরিয়ে আনতে চাষীদের পাট চাষে আগ্রহ বাড়াতে হবে। পরিবেশবান্ধব যেসব ফসল উৎপাদিত হয় সেসব ফসল উৎপাদনে চাষীদের বেশী করে উদ্বুদ্ধ করতে তিনি সকলের প্রতি আহ্বান জানান।

পার্বত্য চট্টগ্রাম নাগরিক পরিষদের পার্বত্য চট্টগ্রাম শাসনবিধি আইন বহাল রাখার ষড়যন্ত্র প্রতিরোধে আশু করণীয় শীর্ষক-গোলটেবিল আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত : উপনিবেশিক ও অসাংবিধানিক ১৯০০ সালের পার্বত্য চট্টগ্রাম শাসনবিধি আইন বহাল রাখার ষড়যন্ত্র প্রতিরোধ করতে হবে–সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম বীর প্রতীক এমপি

পার্বত্য এলাকায় খ্যাতিমান সাংবাদিক হিসেবে বসুন্ধরা মিডিয়া অ্যাওয়ার্ড প্রাপ্ত : পার্বত্য চট্টগ্রামের সংবাদপত্রের পথিকৃত, চারণ সাংবাদিক দৈনিক গিরিদর্পণ সম্পাদক এ,কে,এম মকছুদ আহমেদের ৮০তম জন্মদিন আজ