যাত্রীদের দুর্ভোগ কমাতে বান্দরবানে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান

॥রাহুল বড়–য়া ছোটন, বান্দরবান॥ যাত্রীদের দুর্ভোগ কমাতে বান্দরবান জেলা প্রশাসন ও বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট আথরিটি(বিআরটিএ) এর উদ্যোগে জরিমানা আদায় ও ৭ দিনের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করা হয়।
গতমঙ্গলবার সকালে জেলা সদরের লাল ব্রীজ এলাকা(টিএনটি পাড়া) এলাকায় জেলা প্রশাসনের নিবার্হী ম্যাজিষ্ট্রেট মো. আজিজুর রহমান এর নেতৃত্বে বান্দরবানে স্থানীয় পূরবী,পূবার্ণী,শৈলশোভা,রুমা পরিবহন,রবরব পরিবহনসহ বেশ কয়েকটি ট্রাক ও চাঁদের গাড়িতে মোটর যান অধ্যাদেশ-১৯৮৩ এর ১৩৯,১৪০,১৫২,১৫৫ ধারা লংঘনের দায়ে ১৯ হাজার ৬ শত টাকা জরিমানা আদায় ও যত্রতত্র গাড়ি থামিয়ে ছাত্র-ছাত্রীদের পরীক্ষায় বিলম্ব ঘটানোর, অতিরিক্ত ভাড়া আদায়সহ র্দূব্যবহার করে মারাত্মকভাবে যাত্রী হয়রানি এবং সরকারি আদেশ অমান্য করায় একজন চালক ও চালকের সহকারী (হ্যালপার) কে ৭ দিনের বিনাশ্রম কারাদন্ড দেয়া হয়।
এসময় বাসের যাত্রী মো. সেলিম বলেন, ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করার ফলে গাড়ির চালক ও সুপারভাইজার সচেতন হবে। অতিরিক্ত ভাড়া ও যাত্রী হয়রানী দেয়া থেকে বিরত থাকবে। আমি সরকারের এমন কর্মকান্ডকে স্বাগত জানায়।
রবরব পরিবহনের যাত্রী রিদুয়ানুল করিম জানান, গাড়িতে অতিরিক্ত যাত্রী নেয়ার ফলে আমরা কষ্ট পাচ্ছি। গাড়িতে সিট আছে ৪০ জনের কিন্তু দাঁিড়য়ে আছে আরো ২০ জন। যদি সবসময় এরকম ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালিত হয় তাহলে অন্তত সাধারণ যাত্রীরা সুস্থ ও সুন্দর ভাবে যাতায়ত করতে পারবে।
বান্দরবান কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের শিক্ষার্থী আকাশ দাশ বলেন, আমরা যারা স্কুল বা কলেজে পড়া লেখা করি। আমাদের জন্য গাড়িতে নির্দিষ্ট কোন সিট থাকে না আমাদেরকে বাসে দাড়িয়ে যেতে হয়। তাছাড়া অনেক সময় গাড়িতে স্কুল ছাত্র-ছাত্রীদের সিট ও থাকে না। যেখানে আমাদের বাস ভাড়া হাফ সেখানে গাড়ির হ্যালপার কিছুতেই নিতে চাই না বরং নানা প্রকার দূর্ব্যবহার করে।
এসময় নিবার্হী ম্যাজিষ্ট্রেট আজিজুর রহমান বলেন, বাংলাদেশের বিভিন্ন স্থান থেকে বান্দরবানে ভ্রমণে আসা পর্যটকদের যাতায়ত সুবিধা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে আমাদের এই অভিযান অব্যাহত থাকবে।

পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের ২৬ বছর পূর্তি উদযাপন বিভিন্ন চ্যালেঞ্জ থাকা সত্ত্বেও পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয় শান্তিচুক্তির পূর্ণ বাস্তবায়নে অঙ্গিকারাবদ্ধ ——পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি

পার্বত্য চট্টগ্রাম নাগরিক পরিষদের পার্বত্য চট্টগ্রাম শাসনবিধি আইন বহাল রাখার ষড়যন্ত্র প্রতিরোধে আশু করণীয় শীর্ষক-গোলটেবিল আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত : উপনিবেশিক ও অসাংবিধানিক ১৯০০ সালের পার্বত্য চট্টগ্রাম শাসনবিধি আইন বহাল রাখার ষড়যন্ত্র প্রতিরোধ করতে হবে–সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম বীর প্রতীক এমপি