রাঙ্গামাটিতে ঈদ-উল ফিতরে ৫টি জামাত অনুষ্ঠিত হবে

॥ নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ সারা দেশের ন্যায় রাঙ্গামাটিতেও মুসলমানদের প্রধান ও বৃহত্তম ধর্মীয় উৎসব পবিত্র ঈদ-উল ফিতর যথাযোগ্য মর্যাদায় পালনের প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। ঈদুল ফিতরের দিনে রাঙ্গামাটিতে ৫টি ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হবে।
তবলছড়ি কেন্দ্রীয় ঈদগাঁ কোতয়ালী থানা মাঠে ঈদুল ফিতরের প্রধান জামাত অনুষ্ঠিত হবে। এখানে সকাল ৮টায় ও ৯টায় দু’দফায় ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে।
এ ছাড়াও রিজার্ভ বাজার পুরাতন কোর্ট বিল্ডিং মাঠে সকাল ৯টায়, বনরূপা আদালত প্রাঙ্গনে সকাল ৮টায় ও সকাল ৯টায় ২টি, ভেদভেদী আমানতবাগ মাঠে সকাল ৮টায় ও সকাল ৯টায় ২টি এবং পুরানপাড়া সরকারি প্রাথমিক স্কুল মাঠে সকাল ৯টায় ১টি ঈদুল ফিতরের জামাত অনুষ্ঠিত হবে।
এদিকে ঈদ জামাত ও ঈদের দিনের নিরাপত্তায় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিয়েছে প্রশাসন। ঈদ-উল ফিতর উপলক্ষে রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসনের আয়োজিত এক প্রস্তুতি সভায় জানানো হয় ঈদের দিনে মুসল্লীদের ঈদের জামাতে নামাজের পড়ার জন্য রাঙ্গামাটি জেলায় প্রতিবারের মতো ৫ টি স্থানে ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হবে।
ঈদ জামাতের এলাকাকে সুসজ্জিত করার ব্যবস্থা নিতে পৌরসভা ও ইসলামিক ফাউন্ডেশনকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। এছাড়া ঈদের জামাতের জন্য নির্বাচিত স্থানে মুসল্লীদের অজু করার জন্য পানি ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল বিভাগকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে এবং ঈদের দিন ঈদ জামায়াতের জন্য নির্ধারিত স্থানগুলোতে প্রয়োজনে সময়মত পানি ছিটানোর জন্য সব ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সকে অনুরোধ জানানো হয়।
অন্যদিকে, ঈদের দিন এবং তার পরে রাঙ্গামাটি শহরের আইন শৃঙ্খলা রক্ষার জন্য সার্বক্ষণিক সতর্কাবস্থা জোরদার করতে পুলিশ প্রশাসনকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। এছাড়া জরুরী অবস্থা মোকাবেলায় ফায়ার সার্ভিস, হাসপাতাল, পুলিশ ও বিজিবি কর্তৃপক্ষকে প্রস্তুত থাকার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।
এছাড়া, প্রত্যেক মসজিদের ইমামগণকে স্ব-স্ব মসজিদে মাইকযোগে জামায়াতের সময়সূচি সর্ম্পকে একাধিকবার ঘোষণা প্রদান, ঈদের জামায়াতে প্রয়োজনীয় সংখ্যক মাইক/হর্ণ সরবরাহ, জাতীয় পতাকা ও “ঈদ মোবারক” লেখা সম্বলিত (আরবী ও বাংলায়) পতাকা দিয়ে রাঙ্গামাটি শহরে প্রধান প্রধান সড়কসমূহ সজ্জিত করা, ঈদ উপলক্ষে বিভিন্ন স্থানে প্রামাণ্য চিত্র প্রদর্শন, ঈদের দিন সকল সরকারি, আধা সরকারি ও বেসরকারি ভবনে জাতীয় পতাকা উত্তোলন ও আলোকসজ্জা, শিশু সদন, এতিমখানা, হাসপাতাল ও কারাগারে আটক হাজতী ও কয়েদীদের উন্নত মানের খাবারের ব্যবস্থা, পর্যটন হলিডে কমপ্লেক্সে বিনামূল্যে বেড়ানোর সুযোগের ব্যবস্থা, ঈদের পরে যে কোন দিন শিশু একাডেমীতে ও শিল্পকলা একাডেমীতে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

পার্বত্য চট্টগ্রাম অঞ্চলের মৎস্য সম্পদ উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় জেলা পর্যায়ে স্টেকহোল্ডার ক্যাম্পেইন বিষয়ক কর্মশালা প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতি ঘরে ঘরে কর্মসংস্থান সৃষ্টির পরিকল্পনা বাস্তবায়নে আমাদের আরো গ্রহনযোগ্য প্রকল্প হাতে নিতে হবে —–দীপংকর তালুকদার এমপি