কমেছে ভোজ্য তেলের দাম, সুফল পাচ্ছেনা ভোক্তারা

দেশের পাইকারি বাজারে ভোজ্য তেলের দাম কমলেও খুচরা বাজারে তেমন প্রভাব নেই। এতে দাম কমার কোনো সুফলই পাচ্ছেন না সাধারণ ভোক্তারা। এজন্য খুচরা ব্যবসায়ীদের অতি মুনাফার প্রবণতাকেই দায়ী করছেন পাইকাররা।
দু সপ্তাহের ব্যবধানে সয়াবিন তেলের দাম কমেছে প্রতিমণে সাতশ টাকা। পামওয়েলের দামও কমেছে মণে প্রায় তিনশ টাকা।
পাইকারি বাজারে খোলা সয়াবিন তেল বিক্রি হচ্ছে প্রতি লিটার ৭৫ থেকে ৭৬ টাকা এবং পামওয়েল বিক্রি হচ্ছে ৬৬ থেকে ৬৭ টাকায়। কিন্তু দাম কমলেও খুচরা বাজারে তেমন কোন প্রভাব নেই। এদিকে লিটারে পার্থক্য প্রায় ৬ থেকে ৭ টাকা।
কারওয়ান বাজারে যে দাম একটু দুরেই হাতিরপুল বাজারে গেলে তা বেড়ে যাচ্ছে। আবার অন্যান্য বাজার ভেদেও রয়েছে দামের হেরফের। পাইকারি ব্যবসায়ীরা বলছেন সঠিক তদারকির অভাবেই খুচরা বাজারে দাম কমার তেমন প্রভাব পড়ছে না।
বাজারে খোলা তেলের দাম কমলেও বোতলজাত তেলের দামে কোনো পরিবর্তন নেই। বিক্রি হচ্ছে আগের দামেই।

পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের ২৬ বছর পূর্তি উদযাপন বিভিন্ন চ্যালেঞ্জ থাকা সত্ত্বেও পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয় শান্তিচুক্তির পূর্ণ বাস্তবায়নে অঙ্গিকারাবদ্ধ ——পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি

পার্বত্য চট্টগ্রাম নাগরিক পরিষদের পার্বত্য চট্টগ্রাম শাসনবিধি আইন বহাল রাখার ষড়যন্ত্র প্রতিরোধে আশু করণীয় শীর্ষক-গোলটেবিল আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত : উপনিবেশিক ও অসাংবিধানিক ১৯০০ সালের পার্বত্য চট্টগ্রাম শাসনবিধি আইন বহাল রাখার ষড়যন্ত্র প্রতিরোধ করতে হবে–সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম বীর প্রতীক এমপি